পাসপোর্ট করতে কি কি লাগে?

5/5 - (1 vote)

পাসপোর্ট করতে কি কি লাগে আজকে রিয়েল লাইফ এক্সপেরিয়েন্স শেয়ার করব। যারা ই-পাসপোর্ট করতে চান তাদের জন্য আজকের এই আর্টিকেলটি অনেক হেল্পফুল হবে।

ই-পাসপোর্ট করতে কি কি লাগে?

ই-পাসপোর্ট করতে যা যা ডকুমেন্ট বা কাগজপাতি লাগবে বা পাসপোর্ট অফিসে যে ডকুমেন্ট জমা দেতে হবে পুরোটা নির্ভর করে আপনি পেশা হিসাবে কি সিলেক্ট করছেন।

পেশা হিসাবে কি সিলেক্ট করব?

যারা সরকারি চাকুরিজীবী তাদের জন্য একটা GO/NOC ডকুমেন্ট লাগবে।

GO/NOC বলতে গেলে কিছুটা প্রত্যয়নপত্র এর মতন। আপনার উর্ধস্থ কর্মকর্তার নিকট থেকে নিতে হবে এবং তা জমা দিতে হবে।

আমরা যারা আমজনতা তাদের জন্য পেশা সিলেকশনে সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে।

স্টুডেন্ট হলে কি কি ডকুমেন্ট লাগবে?

আপনি যদি এখনো পড়াশোনা করে থাকেন তাহলে স্টুডেন্ট সিলেক্ট করবেন। এক্ষেত্রে যে ডকুমেন্টগুলো লাগতে পারে:

  • আপনার NID কার্ডের কপি অথবা কার্ড না থাকলে জন্মনিবন্ধন কপি।
  • আপনার SSC সার্টিফিকেটের কপি।
  • বাবা-মায়ের NID কার্ডের কপি।
  • চেয়ারম্যান নাগরিক সনদপত্র। (যা আপনার নিকটস্থ উনিয়ন পরিষদে গেলে পাবেন। )

নোটঃ পাসপোর্ট এপ্লাই করার আগে অবশ্যই চেক করে নিবেন আপনার সার্টিফিকেট এর সাথে আপনার NID তে আপনার নাম ও জন্মসাল সঠিক আছে কিনা এবং আপনার পিতা-মাতার NID নামের মিল আছে কিনা দেখে নিবেন। নয়তো যামেলায় পড়তে হবে পারে।

প্রাইভেট চাকুরিজীবী বা অন্যান্যদের ক্ষেত্রে কি কি লাগবে?

আপনি যদি কোথাও জব করে থাকেন তাহলে আপনার পেশা অনুযায়ী পেশা সিলেক্ট করে নিবেন অথবা পেশা হিসেবে ”প্রাইভেট সার্ভিস” সিলেক্ট করে দিবেন। এক্ষেত্রে আপনি যেখানে চাকরী করেন সেই ফার্মের একটা প্রত্যয়নপত্র লাগবে। আর আপনি যদি কিছুই করেন না কিন্তু আপনার পাসপোর্ট করা লাগবে সেক্ষেত্রে বেকার, ফার্মার, লেভার ইত্যাদি সিলেক্ট করতে পারেন।

নোটঃ আপনার NID তে বাবা-মায়ের নামের ভুল থাকলে সেক্ষেত্রে প্যারেন্টাল ইনফর্মেশনে আপনার NID তে পিতা-মাতার যে নাম দেয়া আছে তাই দিবেন। আর পিতা-মাতার NID নম্বর দেওয়ার বক্সটা ফাঁকাই রাখবেন। নয়তো তাদের NID কপি চাইতে পারে এবং তাদের নামের অমিল থাকলে সমস্যায় পরবেন। তা সংশোধন করতে বলতে পারে।

শেষকথা

আপনার হাতে পর্যাপ্ত সময় থাকলে সবকিছু সংশোধন করে তারপর পাসপোর্ট এপ্লাই করাটা বুদ্ধিমানের কাজ হবে।

Leave a Comment