বাংলা ও ইংরেজিতে প্রফেশনাল ভাবে সিভি লেখার নিয়ম

5/5 - (1 vote)

সিভি লেখার নিয়ম জানা না থাকায় আমরা আমাদের ড্রিম সব থেকে অনেক দূরে পিছিয়ে থাকি। ড্রিম জব পেতে আমাদের বাধা হলো CV এবং ইন্টারভিউ।

চাকরির ইন্টারভিউ ডাক পাবার প্রথম পদক্ষেপ হলো নিয়োগকর্তার কাছে একটি পরিপাটি ও সুন্দর গুছালো সিভি প্রধান করা। কারণ এটি এমন একটি গুরুত্বপূর্ণ জিনিস যা নিয়োগদাতাদের কাছে আপনার চরিত্র এবং দক্ষতা সম্পর্কিত একটি ধারণা দেয়।

আমাদের দেশে অসংখ্য চাকরী সন্ধানকারীরা যে ভুলটা করে তা হলো, কম্পিউটারের দোকানে তৈরিকৃত CV Format প্রোফেশনাল ভাবে মডিফাই না করেই চাকরির আবেদনে জমা দিয়ে দেয়। এই ভুলটা করা যাবে না।

সিভি তৈরি করার সময় অত্যন্ত গুরুত্ব দিয়ে উন্নত ও মান সম্পূর্ণ সিভি তৈরি করা। এর জন্য একটি অবসর সময় বেছে নিন এবং আপনার যে স্কিলগুলো চাকরির নিয়োগ কর্তার নজর কাড়বে বলে আপনার ধারণা এরকম বিষয়গুলো একটি খাতায় নোট করুন তারপর CV তৈরি করতে বসুন। কারণ এটি আপনার ক্যারিয়ারের একটি নতুন অধ্যায় শুরু করার সুযোগ।

সিভি কি? (What is CV)

CV এর পূর্ণরূপ হলো Curriculum Vitae যা সাধারণত দুই থেকে তিন পৃষ্ঠার হয়ে থাকে। যেখানে সাধারণত আপনার দক্ষতা শিক্ষাগত যোগ্যতা এবং ব্যক্তিত্বকে তুলে ধরা হয়।

সিভিতে কী কী অন্তর্ভুক্ত করা উচিত

সিভিতে যে বিষয়গুলো অন্তর্ভুক্ত থাকা উচিত সেগুলো নিচে তুলে ধরা হলো:

১। ব্যক্তিগত তথ্য অর্থাৎ আপনার নাম, ঠিকানা, মোবাইল নাম্বার, ইমেইল এড্রেস, জন্ম তারিখ ইত্যাদি বিষয়গুলো অন্তর্ভুক্ত করা।

২। শিক্ষাগত যোগ্যতা অর্থাৎ আপনার শিক্ষাগত যোগ্যতা কি, কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে পাস করেছেন ও কত সালে পাস করেছেন এবং আপনার অধ্যয়নকালের সময়কাল ইত্যাদি।

৩। অভিজ্ঞতা অর্থাৎ পূর্বের যদি কোথাও কোন কাজ করার অভিজ্ঞতা থেকে থাকে সেটি উল্লেখ করতে হবে এবং কোন পদে ছিলেন সেই বিষয়টিও উল্লেখ করা।

৪। আপনার দক্ষতা সম্পর্কে উপস্থাপন করা অর্থাৎ আপনি যদি পূর্বে কোন একটি জটিল বিষয়কে আপনার দক্ষতার মাধ্যমে সফলতা অর্জন করতে পেরেছেন সে বিষয়টিও সংক্ষিপ্ত আকারে লিপিবদ্ধ করা ।

৫। রেফারেন্স অর্থাৎ আপনি যদি কারও রেফারেন্স এর মাধ্যমে আবেদন করে থাকেন সে বিষয়টি উল্লেখ করা এতে হয়তো ইন্টারভিউ এর ডাক পাওয়ার আশঙ্কা থাকে।

সিভি ফরমেট (CV Format) কেমন হওয়া উচিত

সিভি হলো একটি নথি বা ডকুমেন্ট যা চাকরির নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি কর্তাদের আপনার দক্ষতা এবং অভিজ্ঞতা সম্পর্কে বলে যখন আপনি চাকরির জন্য আবেদন করেন। সাধারণত সিভি ফরমেট সাধারণত ইংরেজিতে লিখতে হয় যা ১ থেকে ২ পৃষ্ঠার হয়ে থাকে এবং তা আপনার প্রয়োজন অনুসারে বাড়তেও পারে।

যেহেতু এটি প্রিন্ট করতে হবে অতএব সিভি ফরম্যাটটি A4 আকারের কাগজ ব্যবহার করা উচিত।

আপনি Arial, Calibri বা Times New Roman এর মত ফন্ট ব্যবহার করতে পারেন এবং ফন্ট আকার 11 বা 12 সাইজ বেছে নিতে পারেন। হেডিং গুলো লেখার জন্য 14 বা 16 এর মতো সাইজ ব্যবহার করে বোল্ড করতে হবে।

আপনার সিভির বিভিন্ন অংশকে আলাদা আলাদা করে তুলতে পারেন। বেশি কালার ব্যবহার না করে ১ থেকে ২টি কালারের মিশ্রণ ব্যবহার করা যেতে পারে। এছাড়াও বিশেষ কোনো গুরুত্বপূর্ণ অংশ বুলেট পয়েন্ট ব্যবহার করা। এতে চাকরিকর্তার পড়তে সহজ হয়।

উপসংহার

সিভি আপনার পেশাদার জীবনের একটি মুখোমুখি চ্যালেঞ্জ যা আপনার দক্ষতা, শিক্ষাগত যোগ্যতা, এবং অভিজ্ঞতা প্রদর্শন করে এবং আপনি সম্ভাব্য নিয়োগকারীর দৃষ্টিকোণে একটি ইমেজ তৈরি করে। অতএব সিভি তৈরির সময় অত্যন্ত গুরুত্বের সাথে তা সম্পূর্ণ করা।

Leave a Comment