নতুন ইমেইল একাউন্ট তৈরী করার নিয়ম

5/5 - (1 vote)

ইমেইল একাউন্ট তৈরী করার পূর্বে জেনে নেই ইমেইলের এর ধরণসমূহ। কত ভাবে ইমেইল একাউন্ট তৈরী করা যেতে পারে।

প্রথমেই নিশ্চিত করছি ইমেইল একাউন্ট দুইভাবে তৈরি করা যায়, একটা হল পেইড ভার্সন আর অন্যটি হল রিভার্সন।

ফ্রি ভার্সনের মধ্যে অনেক উপায়ে account করা যায়। এর মধ্যে সবথেকে জনপ্রিয় হলো গুগলের জিমেইল একাউন্ট তারপর ইয়াহু একাউন্ট এবং মাইক্রোসফট এর আউটলুক একাউন্ট। উল্লেখযোগ্য ফ্রি অ্যাকাউন্ট গুলোর মধ্যে অন্যতম।

পেইড ভার্সন হলো যেটা আপনাকে ডোমেইন কিনে ইমেইল তৈরি করতে হবে। সেটাকে আমরা অনেকে বলে থাকি প্রফেশনাল মেইল বিজনেস মেইল, এবং ওয়েবমে নামে পরিচিত।

ইমেইল আইডি খোলার নিয়ম

ইমেইল আইডি খোলার নিয়ম জানার পূর্বে আপনাকে যে বিষয়গুলো লক্ষ্য রাখতে হবে সে সম্পর্কে আমি নিচে আলোচনা করতেছি।

  • ইমেইল এডড্রেস নাম যতটা রিডেবল রাখা যায় বা সংক্ষিপ্ত রাখা যায় তত ভালো।
  • নামের সাথে খুব বেশি সংখ্যা ব্যবহার না করা।
  • আপনার কাজের ইমেইলে বিড়াল অথবা ফুল অথবা কার্টুনের ছবি ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকা।
  • ইমেইলের পিকচারে আপনার সেইচ ভেজিবল রাখা, যেন পিক দেখে আপনাকে চেনা যায়।

জিমেইল একাউন্ট খোলার নিয়ম

Gmail account খোলার জন্য আপনার মোবাইল ফোন অথবা কম্পিউটার অথবা ল্যাপটপে থেকে যেকোনো ব্রাউজারে যাওয়ার পর accounts.google.com যেতে হবে।নিচে থাকা পরবর্তী ধাপগুলো স্টেপ বাই স্টেপ ফলো করুন।

প্রথম ধাপ: প্রথমত Create Account ক্লিক করুন। তারপর আপনার সামনে একটি পপআপ বক্স ভেসে উঠবে সেখান থেকে For my personal use সেখানে ক্লিক করতে হবে নিচে থাকা ছবিটি দেখুন।

Create Account
Create A new Gmail Account

দ্বিতীয় ধাপ: ইমেইলের নাম সেট করার জন্য আপনার সামনে দুইটি বক্স শো করবে প্রথম বক্সে আপনার নামের প্রথম অংশ দিতে হবে এবং দ্বিতীয় বক্সে আপনার লাস্ট অংশ দিতে হবে। ধরুন আমার নাম Moshiur Rahman তাহলে আমাকে প্রথম বক্সে Moshiur এবং দ্বিতীয় বক্সে Rahman দিতে হবে।

ইমেইলের নাম সেট
ইমেইলের নাম সেট করা

তৃতীয় ধাপ: এই ধাপে আপনাকে আপনার জন্ম সাল এবং আপনি ছেলে না মেয়ে সেটি সেট করে দিতে হবে। প্রথম বক্সে মাস তারপর ডেট এবং ইয়ার সেট করে দিতে হবে এবং দ্বিতীয় বক্সে ক্লিক করে আপনি ছেলে হলে Male এবং মেয়ে হলে Female দিতে হবে।

Gender Selection
Birthday and Gender Selection

চতুর্থ ধাপ: এই চতুর্থ ধাপটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ আপনাকে খুব সাবধানতার সাথে ইউজার নামটি দিতে হবে। অর্থাৎ এই ইউজার নামটিই হলো আপনার ইমেইল এডড্রেস। এটি একবার সেট করা হয়ে গেলে তা আর কখনোই আপনি পরিবর্তন করতে পারবেন না।

Email Username Setup
Email Username Setup

পঞ্চম ধাপ: এই পঞ্চম থাপটিও খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আপনাকে এখানে আপনার ইমেইলের পাসওয়ার্ড সেট করতে হবে। পাসওয়ার্ড সেট করার সময় অবশ্যই আপনাকে ক্যাপিটাল লেটার, স্মললেটার, নাম্বার এবং স্পেশাল ক্যারেক্টারের কম্বিনেশনের মাধ্যমে একটি স্ট্রং পাসওয়ার্ড তৈরি করে নিতে হবে। কেননা এই ইমেইল এর মাধ্যমে আপনি মেলিং থেকে শুরু করে সকল ধরনের কাজকর্ম করে থাকবেন। এবং ইমেইল এড্রেস এবং পাসওয়ার্ডটি বাসায় নোটপ্যাডে লিখে রাখতে হবে পরবর্তীতে যেন মনে না থাকলে সেখান থেকে আবার দেখে নিতে পারেন।

Password Setup
Password Setup

ষষ্ঠ ধাপ: এই ধাপে এসে আপনাকে একটি চলমান ফোন নাম্বার দিতে হবে। ভেরিফিকেশন করার জন্য আপনার ফোন নাম্বারে Google থেকে একটি OTP (One Time Password) কোড পাঠানো হবে।

Phone Number Setup
Phone Number Setup

সপ্তম ধাপ: ফোনে আসা OTP কোডটি বসিয়ে দিতে হবে এবং নেক্সট বাটনে ক্লিক করতে হবে।

OTP Verification
OTP Verification

অষ্টম ধাপ: এই ধাপে এসে আপনার কাছে একটি ইমেইল চাওয়া হবে। কারণ পরবর্তীতে কোনো সময় আপনার ইমেইলের পাসওয়ার্ড ভুলে গেলে রিকভারি করতে পারেন। যেহেতু আমরা নতুন ইমেইল একাউন্ট তৈরী করতেছি এজন্য আমরা Skip করব।

Recovery Email Setup
Recovery Email Setup

এর পরবর্তী ধাপ গুলো আশা করি না বললেও করতে পারবেন। এরপর আর তেমন কিছু নেই, আপনাকে নেক্সট এবং এগ্রি করে যেতে হবে।

উপসংহার

নতুন একাউন্ট তৈরী নিয়ম সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে। এছাড়াও কোথাও কোন বুঝতে সমস্যা হলে কমেন্টে জানাবেন।

Leave a Comment